হাসিদা মুন এর কবিতা

বিশাল বিশাল জোঁক

চিন্তা সমুদয় একটা হাঁচিতে লুটাইয়া মাটিতে পইরা গেলো,
ভূতাত্ত্বিক আস্তরগুলানে লুটোপুটি খাইতেই থাক্ লো –
ভূগোলের সিমানাডার চিমসানো আঁকার আয়তন দেইখা
মানচিত্র’রে জেরাসা আউদা খাউদা
আর প্রভুহীন মনে হইলো..

আমি হাতের আঙ্গুল গুইন্না গুইন্না সারিবদ্ধ পঞ্চম আঙ্গুলের পর
ষষ্ঠ আঙ্গুলের মঙ্গলের লাইজ্ঞা
একজন শুদ্ধ দেশ নির্মাতা
খুঁইজা পাইতা পাইতে চাইলাম
হিসাবের হেরফেরে পইড়া যাইতেই
পিছন ফিরা দেখলাম –
দেশের হাচা কথা কইতেই,
সফেদ জুব্বা পিন্দনে মশহুর সাত সাতটা উল্লুক ফাল পাইড়া
ছুইটা আইসা কইলো, ধর্ –
মর জ্বালা !
ঈমান অক্ষণ দেখি – ‘কাপড় নির্ভর’ …

ডরে সাত সামলাইয়া সতেরোর মাথায় বাইয়া উঠলাম গিয়া
দেইখা ফেলাইলাম সামনে
ঘন বন জঙ্গল অহন আর নাই
বামে গ্রাম ভাইঙ্গা বালুর বন্যায়
নগরায়ণ চলতিই আছে
ভরাট করণে বেবাক ভইরা গ্যাছে…

উত্তরের উত্তরায় আগে আছিলো
তাল গাছের সারি
আশেপাশে সামনে পিছে ডরজন ধইরা ভূমিদস্যু সবুজভুক আহারী
তল্লাস তল্লাশি কইরা দুউউরে দেখা যায় নকশী অট্টালিকা বেশুমার বাহারী …

বিপণীকেন্দ্র সমাহার ভ্রান্ত প্রক্রিয়া কইরা
মইদ্দে দিয়া সকল কেন্দ্রেই
খাতিজমা বইসা আছে
সাথে জমজমাট জ্যাম লাইগা যায়
তাহারই পাছে
তাজ্জব হইয়া দেশের প্রেমে খাড়াইয়া থাকে গাড়ীর বহর মহান স্মরণে
জ্যান্ – লম্বা নিরাবতা পালনে
অদ্ভুত খুবই অদ্ভুত
আরে ধুউউত !
আসে পাশে রইছেনা দেশী বিদিশি ব্যাংকের কত্ত ‘এটি এম বুথ’…

বহুত কষ্টে ঘাড় ঘুরাইয়া একটু উঁচা হইয়া দেখি
বাতাসে অক্সিজেনের টান্ পইরা শ্বাস আটকাইয়া আসে একি ?
সময়ের ঠায় নাইক্কা
শুধুই সময়ের হের ফের
নাইমা ক্রোনোমিটার খরিদ করমু ঢের
উঁচা দলানে আরাম নাইক্কা
জেরাছা শান্তির লাইগা, “সব ক’টি জানালা খুলে দাওনা” গাইতে গাইতে
টিলায় উঠলাম গিয়া
কিন্তু পায়ের তলায় মিললো
কিছু মড়ার খুলি
দুঃখের কথা বইসা তাঁগোরেই খুইল্লা বলি –

ব ৎ স ! দেশ গড়ার লাইগা
খুঁজতাসি দেশপ্রেমিক ভালো লোক
চিল্লাইয়া খুল্লিরা কইলো …
খতাইয়া হেগোর হজ্ঞল টেকা পয়ছার্-
আগে পিছের বেবাক হিসাব লওন হোক
নাইলে দ্যাশের গায়ে কইলাম –
লাইগা গ্যাছে ভি
যাইতে আছে ভি
বিশাল বিশাল মানুষ খাওয়াইন্না জোঁক ……..

 

Author: Moon

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *