হাসিদা মুন এর কবিতা

সময়ের সাথে জীবনের সহমরণ
উচ্চারিত শব্দগুলোর এক ধরণের মোহাচ্ছন্ন করার অসাধারণ ক্ষমতা আছে।
আমার ইচ্ছের প্রচ্ছায়ায় সেইসব শব্দরা লালিত পালিত হয় এবং আত্মস্থ থেকে থেকে এক ধরণের শক্তিও বহন করে, অদ্ভুত সেসব শক্তিসমূহের সক্ষমতা ও অক্ষমতার প্রতীক বয়ে নিয়ে – অনিমেষনেত্রে মুহূর্তরা চলে যায় – এভাবেই উপযুগ যুগ যুগান্তরে কাল মহাকালের আবর্তে হারায় ……
 
পক্ষান্তরে শব্দ প্রস্তুতের জন্য যে জীবন – সে অতিসাধারণ। অহর্নিশ মৃত্যুর প্রভাবময় ক্ষমতা ঘাড়ে করে বয়ে নিয়ে বেড়ায়। জীবনের উপস্থাপনার বিশেষত হচ্ছে – বিশেষের সন্ধানেই কেটে যায় প্রবাহমাণ আজন্মকাল। সেখানে দাঁড়িয়েই মায়াময় শিরনামে দিনকাল ঘরে আসে – বাইরে যায় …
 
ঘরের মধ্যে সাফল্যের প্রফুল্লকরা মনের জন্য সর্বোপরি দরকষাকষি চলে কতিপয় মানুষ ও ঈশ্বরের সাথে।
কিছু মন্দ রহস্যও উৎসারিত হতে থাকে এসবের আশেপাশে আবহমানকাল ধরেই …
 
যে যা কিছু ঘোষণা করুক , মৃত্যুর সাথে অনানুষ্ঠানিক সংগ্রাম করে যাওয়াই হচ্ছে জীবিত থাকার মঞ্চায়ন !
সুস্থ জীবনধারায় নেতৃস্থানীয় আকাংখার সার্বক্ষণিক ফলপ্রসূ হবার কোন উপায় নেই !
সুবিশাল মহাবিশ্বের সাথে বিনীত অবস্থান করতে হলে –
বিভিন্ন উপায়
বিভিন্ন অবস্থায়
বিভিন্ন দিকে
আবর্তিত হয়ে চতুর্দিকে খুঁজে চলতে হয়।
 
সমস্ত কিছুই হচ্ছে জীবিত জীবনের জন্য ‘মিথোজীবিত্ব’ উপকরণ।
যা শুধুই সময়ের সাথে – এক জীবনের সহমরণ …….

Author: Moon

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *